‘‘এই নির্বাচনে মানুষ নরেন্দ্র মোদির মুখে লিউকোপ্লাস্ট আটকে দেবে-মমতা

অনলাইনডেক্স ০২:৩৩, ৯ এপ্রিল ২০১৯

ভারতের আসন্ন লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবার তীব্র আক্রমণ করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে। কোচবিহারের রাসমেলার মাঠে অনুষ্ঠিত এক জনসভায় তিনি বলেন,  মোদির মিথ্যা কথা বন্ধ করবার একটাই পথ খোলা আছে সাধারণ মানুষের সামনে। তা হল, মোদির মুখটা লিউকোপ্লাস্ট টেপ দিয়ে বন্ধ করে দেওয়া। সংবাদসংস্থা পিটিআই-এর পক্ষ থেকে তাঁকে উদ্ধৃত করে জানানো হয়, ‘‘এই নির্বাচনে মানুষ নরেন্দ্র মোদির  মুখে লিউকোপ্লাস্ট আটকে দেবে। এমনভাবে আটকে দেবে, যাতে আর একটা মিথ্যেও ওই মুখ দিয়ে না বেরোতে পারে। দেশের স্বার্থে, দেশের মানুষের স্বার্থে, শুধু প্রধানমন্ত্রী পদ থেকেই না,  মোদিকে রাজনীতি থেকেও ছুঁড়ে ফেলে দিন আপনারা”।
রবিবার এই কোচবিহারের রাসমেলার মাঠেই সভা করে গিয়েছিলেন নরেন্দ্র মোদি। সেই সভায় মোদি বলেন, ‘‘এখন এই রাজ্যে যত লোক ‘দিদি, দিদি’ করে চিৎকার করে তার থেকে বহুগুণে বেশি লোক গলা ফাটায় ‘মোদি, মোদি’ বলে। মোদি পরে আরও যোগ করেন, তাঁর এই ভাষণের ফলে ‘দিদির ঘুম উড়ে গিয়েছে’।
নরেন্দ্র মোদি রবিবার কোচবিহারের সভামঞ্চ থেকে আরও বলেছিলেন যে, “আপনাদের আমি কথা দিচ্ছি, ক্ষমতায় এলে এই চৌকিদার প্রত্যেকটি লুঠ হয়ে যাওয়া পয়সার জন্য উত্তর দিতে বাধ্য করবে রাজ্য সরকার ও তৃণমূল কংগ্রেসকে তথাপি তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে”।
মোদির এই মন্তব্যের পরই ধারণা করা হচ্ছিল পাল্টা আক্রমণ করতে যাচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতা তাঁর ভাষণের একপর্যায়ে বলেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর গত পাঁচ বছরের মধ্যে সাড়ে চার বছর ধরে নরেন্দ্র মোদি শুধু এ দেশ ও দেশ ঘুরে বেড়িয়েছে। গোটা দেশজুড়ে যে হাজার হাজার কৃষকরা আত্মহত্যা করেছে এই ক’বছরে, তাদের জন্য কী করেছে? মুখে বড় বড় কথা খালি! ন‌োটবাতিলের পর কত মানুষ মারা গিয়েছে, কত কোটি কোটি লোক কাজ হারিয়েছে, কী করেছে তাদের জন্য এই ভণ্ড প্রধানমন্ত্রী”?

পাঠকের মন্তব্য

লাইভ

টপ