সর্বশেষ :

তিতাস গ্যাস প্রিপেইড মিটার স্থাপন প্রকল্প, মেয়াদ বাড়লো ২০২০ সাল পর্যন্ত

আতাউর রহমান ০৪:২৮, ১০ এপ্রিল ২০১৯

গত ডিসেম্বরে এই প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা । এর মধ্যে লক্ষ্যমাত্রার মাত্র অর্ধেক অর্থাৎ ১ লাখ গ্রাহককে মিটার দিতে পেরেছে তিতাস। প্রকল্পের মেয়াদ নতুন করে বাড়ানো হয়েছে ২০২০ সাল পর্যন্ত।

নানা আলোচনা সমালোচনার পর ২০১৫ সালে প্রিপেইড মিটার দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় তিতাস। প্রাথমিকভাবে ২৭ লাখ ৭ হাজার আবাসিক গ্রাহকের মধ্যে প্রিপেইড মিটার দেয়ার কথা ছিল ২ লাখ গ্রাহককে।
তিতাস গ্যাস প্রিপেইড মিটার স্থাপন প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী মো. ফয়জার রহমান বলেন, শুরুর দিকে মিটার গ্রহনের ক্ষেত্রে গ্রাহকদের অনিহা ছিল। অনেক বাড়িগুলোর মিটার বসানোর অনুপযুক্ত ছিল। অনেকের লাইনে লিক সহ নানা সমস্যা থাকার কারণে তারা প্রিপেইড মিটার বসাতে চায়নি। এই সমস্ত কারণে প্রাথমিক পর্যায় থেকে আমরা খুব ধীরগতিতে এগোচ্ছিলাম। যেসব মিটার ইতিমধ্যে বসানো হয়েছে তা চালু করা হবে এপ্রিলের মধ্যে।
জাপানের অর্থনৈতিক সাহায্য সংস্থা জাইকা, বাংলাদেশ সরকার ও তিতাস যৌথভাবে এই প্রকল্পে অর্থায়ন করছে। প্রতিবার রির্চাজে গ্রাহকদের কাছ থেকে ৭ টাকা করে কেটে নিচ্ছে তিতাস। এই প্রকল্প চালুর আগে পরিক্ষামূলকভাবে প্রায় ৫ হাজার গ্রাহক এই মিটার ব্যবহার করছে। সেখানে গ্রাহকদের প্রতি মাসে গড়ে খরচ হচ্ছে ৩৫০ থেকে ৪০০ টাকা। এদিকে মিটারবিহীন গ্রাহককে বাধ্যতামূলকভাবে প্রতি মাসে বিল দিতে হয় ৮০০ টাকা।

পাঠকের মন্তব্য

লাইভ

টপ