সর্বশেষ :

‘দুর্গাপূজার স্মৃতিটুকু হারাতে চাই না’

অনলাইন ডেস্ক: ১১:৪৮, ৬ অক্টোবর ২০১৯

নিজেকে অনেকটাই ঘরবন্দি করে ফেলেছেন তিনি। রূপালি পর্দাতেও আর সেভাবে দেখা যায় না তাকে। স্বামী, সন্তান আর ঘর-সংসার নিয়েই এখন বেশিরভাগ সময় কাটে তার। এরপরও তাকে এক ঝলক দেখার আশায় আজওঅধীর আগ্রহে বসে থাকেন তার একসময়ের ভক্তরা।

তবে নিজেকে তিনি যতোই ঘরবন্দি করে ফেলুন না কেন, দুর্গাপুজোর সময় পুজো সেলিব্রেট করবেন না, এমন তো চলতে পারে না। তাইতো প্রতিবারের মতো এবারেও নিজের বাড়ির দুর্গাপূজা মিস করলেন না একসময়ের বলিউড হার্ট থ্রব রানি মুখোপাধ্যায়।

সপ্তমীর সকালে তিনি সটান হাজির হয়ে গেলেন নিজের বাড়ির পুজো মণ্ডপে। সপ্তমীর সকালে সাদা লিনেন শাড়ির সঙ্গে মিলিয়ে গলায় মুক্তোর মালা, কানে দুল, হাতে শাঁখা, পলা ও চুরি পরে ধরা দিলেন সকলের সামনে। বাড়ির পূজোতে উপস্থিত হয়ে ভক্তদের উদ্দেশ্যে হাতও নাড়লেন।

রানি জানালেন, ‘বহু বছর ধরে আমাদের পরিবার দুর্গাপূজা করে আসছে। আমাদের পরিবারের এই দুর্গাপূজার রীতি আজও চলে আসছে। এটা দুর্গা মায়ের আশীর্বাদ। আমি আশা রাখি, যেভাবে বাবা মায়েদের পর আমরা একসঙ্গে এই দুর্গাপূজা করছি, আমাদের পরবর্তী প্রজন্ম যেমন আমার মেয়ে, আমার ভাইয়ের দুই ছেলে-মেয়েও আমাদের পরিবারের এই দুর্গাপূজার রীতি ধরে রাখবে।’

এদিন রানি তাদের মুখার্জি পরিবারের সঙ্গে আনন্দে মেতে ওঠেন। কচিকাঁচাদের গাল টিপে আদর করতেও দেখা যায় তাকে।

রানি আরো বলেন, ‘আমাদের মুখার্জি বাড়ির এই দুর্গাপূজা ৭২ বছরের পুরনো। দুর্গাপূজা বরাবরই আমার ছেলেবেলার স্মৃতিকে ফিরিয়ে এসে দেয়। যে স্মৃতিটুকু আমি কখনই হারাতে চাই না। এই সময়টা আমরা পরিবারের সবাই একসাথে হই। আড্ডা মারি, একসঙ্গে সময় কাটাই। ছোটবেলায় এই দুর্গাপূজার মাধ্যমেই আমরা বাঙালি সংস্কৃতির কথা জেনেছি। জেনেছি রবীন্দ্রসংগীত, নাচ, গান, নাটকসহ আরও অনেক কিছু। টানা পাঁচ দিন ধরে চলা এই পূজা আমাদের পুরো মুখার্জি পরিবারকে এক ছাদের তলায় এনে দেয়।’

পাঠকের মন্তব্য

লাইভ

টপ