সর্বশেষ :

নওগাঁর সাপাহারে স্ত্রীকে শ্বাষরোধে হত্যা’ রহস্য উন্মোচন-স্বামী আটক

সোহেল রানা চৌধুরী, সাপাহার ১০:৫১, ২১ অক্টোবর ২০১৯

নওগাঁর সাপাহারে স্ত্রী রুমী (২৫) কে শ্বাষ রোধ করে হত্যা করে বিষয়টি ডাকাতির ঘটনা বলে চালানোর চেষ্টা করেছিল  স্বামী নজরুল ইসলাম (৩২)। শনিবার দিবাগত রাতে উপজেলার বিদ্যানন্দী বাহাপুর গ্রামে নিশৃংস ঘটনাটি ঘটেছে।

কথায় রয়েছে পুলিশ পারেনা এমন কোন কাজনেই তারই দৃষ্টান্ত নজির স্থাপন করলেন নওগাঁর সাপাহার থানা পুলিশ। থানার (ওসি) আব্দুল হাই এর তৎপরতায় বিভিন্ন নাটকিয়তার পর স্ত্রী হত্যার দায় শিকার করেছেন স্বামী নজরুল ইসলাম।

এবিষয়ে সাপাহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল হাই বলেন, খবর পেয়ে শনিবার দিবাগত  রাত ৩ টার দিকে ফোর্স সহ ঘটনাস্থল পৌছালে বিষয়টি আমার কাছে রহস্য জনক মনেহয়েছে কোন পরকীয়া কিংবা স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সৃষ্ট কোন মন মালিন্যের কারণে সে তার স্ত্রীকে ঘুমের ঘোরে শ্বাস রোধ করে হত্যা করতে পারে এ নিয়ে এলাকায় খুব জোরালো গুঞ্জনও চলছিল। এটি কোন চুরি কিংবা ডাকাতির ঘটনা নয়, চুরি বা ডাকাতি হলে তারা ঘরের মধ্যে থাকা নগদ টাকা পয়সা, গহনা কিছুই নেয়নি সবই অক্ষত অবস্থায় রয়েছে। একটি জিনিষ পত্র ও খোয়া যায়নি কিংবা কোন দরজা জানালাতেও কোন চিহৃ নেই বিষয়টি আমাদের কাছে সন্দেহজনক মনে হয়েছে।

জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে সে তার স্ত্রী কে হত্যাকরেছে বলে আমাদেরকে শিকারোক্তি মূলক জবান বন্দি দিয়েছে। তাকে আটক করাহয়েছে তার বিরুদ্ধে সাপাহার থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে যানিয়েছেন (ওসি) আব্দুল হাই।

উল্লেখ্য নজরুল ইসলাম তার স্ত্রীকে হত্যা করার পর বিষয়টি ডাকাতি হিসাবে চালিয়ে দেয়ার জন্য নিজের মুখে কসটেপ এঁটে দায় ও গামছা দিয়ে দুই হাত বেঁধে প্রতিবেশী দের দরজায় টোকাদিলে  এ সময় তারা তার মুখের টেপ ও বাধঁন খুললে সে তাদেরকে বলে যে আমার বাড়ীতে ডাকাত দল প্রবেশ করেছে, তারা আমার ছেলেকে কুপের মধ্যে ফেলে দিতে চায় আপনারা আমার ছেলেকে বাঁচান বলে জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। সাপাহার পুলিশের কৌশলে তড়িৎ গতিতে এই হত্যা রহস্যটি উৎঘাটন হয়।

পাঠকের মন্তব্য

লাইভ

টপ