পথ শিশুদের নতুন জামা

আতিকুর হাসান সজীব ০৫:৩৩, ১ জুন ২০১৯

আর মাত্র কয়েক দিন পরই ঈদ । এখন সবাই ব্যস্ত ঈদের নতুন জামা-কাপড় কিনতে।  অনেকের আবার অর্থ অভাবে কেনার ভাগ্য হয়নি। অনেকে এখনো আশা নিয়ে আছে হয়তো তাদের জামা কাপড় কিনে দেবে কেউ। সেই স্বপ্ন ব্যস্তবায়ন করলো সান্তাহারের প্রথম আলো বন্ধু সভা সদস্যরা।

এমনি এক চিত্র তুলে ধরা হল। আদমদীঘি উপজেলার দমদমা গ্রামের ভ্যানচালক বাবু হোসেন। সে দুই মেয়ের নতুন জামা কাপড় কিনে দিতে পারছিলনা বুধবার সকালে বন্ধুসভার সদস্যরা তাঁর বাড়িতে গিয়ে স্ত্রী শাপলা খাতুনকে যখন তাঁর মেয়েদের জন্য নতুন জামা কিনে দেওয়ার কথা বললেন, তখন শাপলা খাতুন আনন্দে প্রায় কেঁদে ফেললেন। তিনি বলেন, কয়েক দিন ধরে মেয়েরা নতুন জামা কাপড় কেনার জন্য বায়না ধরেছিল। কিন্তু ওদের বাবা জামা কিনে দিতে পারেননি। এ নিয়ে খুব কষ্টে ছিলাম, মেয়েদের দিকে তাকাতে পারছিলামনা। কিন্তুু প্রথম আলোর বন্ধু সভার সদস্যরা এসে মেয়েদের জন্য নতুন জামা দেওয়াই সেই কষ্ট দূর হলো।

সান্তাহার শহরের প্রতিবন্ধী নার্গিস বানু এসেছিলেন তাঁর একমাত্র মেয়ে সাথিকে নিয়ে। সে ও নতুন জামা পেয়ে আনন্দে দিশে হারা হয়ে উঠে।সাথি সান্তাহার শহরের একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রী। সাথির মতো আরও ৫০ জন শিশু ঈদের আগে নতুন জামা পেয়েছে। সান্তাহার শহরের পাশের গ্রাম দমদমা, কলসা, পৌওতা, রথবাড়ি এলাকায় গিয়ে এসব সুবিধাবঞ্চিত শিশুকে খুঁজে বের করেন সান্তাহার বন্ধুসভার সদস্যরা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বগুড়ার সান্তাহার বন্ধুসভা শিশুদের মধ্যে রঙিন জামা বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সান্তাহার বন্ধুসভার উপদেষ্টা সাংবাদিক হারেজুজ্জামান, ব্যবসায়ী রেজাউল ইসলাম, গোলাম আম্বিয়া লুলু, প্রথম আলোর আদমদীঘি প্রতিনিধি খায়রুল ইসলাম, বন্ধুসভার সভাপতি রবিউল ইসলাম, নারী বিষয়ক সম্পাদক হাসনা হেনা, সাংগাঠনিক সম্পাদক আহসান হাবিব, যোগাযোগ বিষয়ক সম্পাদক মোস্তায়িন বিল্লাহ, সদস্য সাদিয়া আক্তার, সুমাইয়া বিনতে সহি, শিউলি আক্তার, আল আমিন, জাহিদ কবির সহ  প্রমুখ।

পাঠকের মন্তব্য

লাইভ

টপ