সর্বশেষ :

বদলি হলেন নওগাঁ সদর থানার ‘জনবান্ধব’ ওসি আব্দুল হাই

ইউনুস আলী ফাইম ০৪:০২, ২৬ মে ২০১৯

পুলিশই জনতা, জনতাই পুলিশ’ কথাটির যথার্থতা অনেক সময় কিছু পুলিশ সদস্যদের মাঝে খুজে পাওয়া মুশকিল হয়ে যায়। বিভিন্ন সময় কিছু পুলিশ সদস্যদের অনৈতিক কার্যকলাপের মধ্যদিয়ে। অনেক পুলিশ সদস্যর সখ্যতার কথা শোনা যায় যখন মাদক ব্যবসায়ী, আইনভঙ্গকারী অথবা নিরীহ জনসাধারণের পকেটে মাদক দিয়ে ‘সামারী’ নামক নাটক রচনা করে টু-পাইস ইনকাম করে, তখন বিশ্বাস ভঙ্গ আর অবহেলার পাত্র হয়ে তারা নিজের অজান্তেই মনে পুলিশ সম্পর্কে কালো দাগ কাটে। আবার সেই পুলিশ সদস্যরই অনেকে তাদের সদাচরণ, নৈতিক কর্মকান্ড, সেবার মনোভাব ও আইনের প্রতি শ্রদ্ধাভরে গণমানুষকে আপন পরিবারের সদস্য মনোভাবে সেবা’র মাধ্যমে যখন মন জয় করে। তখন পুলিশই জনতা, জনতাই পুলিশ’ উক্তিটির যথার্থতা খুজে পাওয়া যায়। যে পুলিশ সদস্য সেবার ব্রত নিয়ে এ কাজ করে সেই পুলিশ সদস্য গনমানুষের কাতারে চলে এসে একজন আমজনতা হয়ে আইনের সেবার মাধ্যমে নিজেকে মহিমানণ্যিত করে। তখন সে একজন পোষাকধারী আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল, পরোপোকারী সাধারণ জনতা হয়। হয়তো সে নিজেই বুঝে উঠতে পারে না। সে তখন আপন কর্মমহিমায় জ্বল জ্বল করে এলাকাবাসীর মনিকোঠায়। তেমনি একজন সাধারনের মাঝে অসাধারন আইনের সেবক নওগা সদর মডেল থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল হাই।
কিছুদিন পূর্বে নওগাঁর আপামোর সাধারন, আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল জনতাকে কাঁদিয়ে গেলেন নওগাঁ সদর মডেল থানার ওসি আব্দুল হাই। বদলি হয়েছেন সরকারী চাকুরীর গতানুগতিক নিয়মে।

নওগা শহরের অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে শহরের আইন শৃংখলা বজায় রাখার দ্বায়িত্বভার নিয়ে কর্মক্ষেত্রে যোগ দিয়েছিলেন ২০১৮ সালের ২৭মে। যোগদানের পর হতেই তিনি মাদক, ছিনতাই, চুরি-ডাকাতি, দখল, চাদাবাজ সহ সকল অন্যায় কর্মকান্ডকে নিজ যোগ্যতা ও সাধ্যমতো নিয়ন্ত্রনসহ বন্ধ করতে সক্ষম হয়েছিলেন।
এ প্রসঙ্গে সদর থানাধীন কালিতলার বাসিন্দা বিমল কার্মকার বলেন, তার বদলি সংবাদে অসাদু, দুর্নীতিবাজরা হয়তো আনন্দ উল্লাস করলেও মন ভেঙ্গেছে সাধারন আপামোর জনগনের। তিনি অন্যায় অনিয়ম, মাদক দাদন ব্যাবসায়ী ও হয়রানির ঘোর বিরোধী ছিলেন।
আলুপট্টির ব্যবসায়ী জনৈক আব্দুল হালিম বলেন, থানায় সেবা প্রার্থীদের সেবা নিশ্চিত করতে সরাসরি তিনি নিজেই কথা বলতেন। এক কথায় পুলিশি আদর্শের মডেল ছিলেন ওসি আব্দুল হাই সাহেব। অনেক দাদালদের কাছ থেকে সেবা প্রার্থীদের টাকা ফেরৎ নিয়ে দেয়ার মতো ঘটনাও ঘটেছে তার কঠোর নজরদারীতে।


ওসি আব্দুল হাই সম্পর্কে ডেপুটি ইনেস্পেক্টর অব পুলিশ মো: মোজাম্মেল হক তার ফেসবুক ষ্ট্যাটাসে লিখেন,  Md. Moyammel Haque is with Hai Newtun. May 24 at 11:49 AM · একজন জনবান্ধব পুলশি র্কমর্কতা তার র্কম এলাকায় কতবশেী জনপ্রিয় হতপোরে তার প্রকৃষ্ট উদাহরন নওগাঁ সদর থানার সদ্য বদিায়ী ওসি জনাব আব্দুল হাই। সারাদেশে প্রতিদিন যখন ওসিদের বিরুদ্ধে যখন একাধকি অভিযোগ শুনতে পাই ঠকি তখনই ওসি হাই এর ক্ষেত্রে কেবলি প্রসংসা। ইতিপূর্বে তিনি শাহজাদপুর হতে বদলীর সময় ঐ এলাকার শত শত মানুষ বদলীর প্রতিবাদে প্রায় মাসব্যাপি মছিলি ও মানববন্ধন করেছিল। আমি নওগাঁয় এসপি হিসেবে চাকুরী করেছি তাই তোমার বদলীর সময় নওগাঁর গণমানুষের তোমার প্রতি আবগে ও ভালবাসার কথা শুনতে পাচ্ছি। শতশত মানুষ তোমার জন্য দোয়া করছে তোমার কল্যাণ কামনা করছে। এটিইতো আমাদের চাকুরী জীবনের বড় পাওয়া। আমাদের বদলির চাকুরী। আমরা দায়িত্ব পালনকালে র্কমস্থলকে ভালবেসে ফেলি। তাই বিদায় নেওয়ার আমরা সময় অনকে সময় আবেগেপ্লুত হই। ভাল থেকো প্রিয় আব্দুল হাই। তোমার আকাশচুম্বি সততা, সাহসীকতা, স্বচ্ছতা, জবাবদীহিতা এবং জনপ্রিয়তা পুলিশ বিভাগের সকলের জন্য অনুস্মরণীয়। তুমি সমগ্র পুিলশ বিভাগের র্গব। তুমি বদলি হয়ে অন্যত্র চলে গেলেও নওগাঁবাসী অনেকদিন তোমাকে মনে রাখবে। তোমার জন্য অনেক অনেক শুভকামনা রইলো।
একইভাবে মোতাসিম মিঠু লিখেন, Motasim Mithu :জীবনের প্রথম একটি কাজে থানায় গিয়েছিলাম স্যার বিদ্যুৎ গতিতে হয়েছে, অনান্য থানা গুলরি মত তাল বাহনা ছিলনা। তাছাড়া আমার ভালো লগেছেলি ঐ দিন, আমরা খুলনা পিটিসিতে আইন ক্লাস করাকালীন সময় স্যার প্রশ্ন করে বসল যে বাংলাদেশের কোন ওসি ঘুষ ছাড়া ওসি হবেনা, তখন বেশ কয়জন এএসআই আমিসহ জানতাম আঃ হাই স্যার বর্তমান নওগাঁ সদর থানার ওসি ঘুষ ছাড়া ওসি, এ কথা পুরো পটিসিরি ৫০০ এএসআই তথা সকল অফিসার ফোর্স অবগত হয়, এটা তার জন্য বিশাল অবদান স্যার।

Shafiqul Haque লিখেন, ভাই আব্দুল হাই,
আপনি আপনার কৃতকর্মের জন্য নন্দিত হয়ে যে মানুষের দোয়া র্অজন করছেন সবাই যদি ইচ্ছে করলে এমন হতো তাহলে পৃিথবী টা বদলে যেেত পারতো। তবে এমন দোয়া পাওয়ার ভাগ্য সবার হয় না জন্য কউে কউে আজিবন নিন্দিত থেকে যায়। পরম করুনাময় আপনাকে সব সময় হফোজত করুক। কারন যে পথ আপনি বেেছ নিয়েছেন তাকে লালন করা সত্যি অনেক কঠিন। সবকিছুকে মোকাবেলা করার শক্তি যেন সৃষ্টির্কতা আপনাকে দেন। আমিন।

Shekhor Mojumder লিখেন,  আমাদের এই সমাজে ভাল মানুষ খুব প্রয়োজন-পুলিশের র্কমঘন্টা বলতে ২৪ ঘন্টা,মানুষের নানা অভিযোগ-অনুযোগ,সমাজের সামাজিক নিরাপত্তায় পুিলশকে র্সবত্রই কাজ করতে হয়-কথায় আছে যে বেশী কাজ করে তার অভিযোগ বেশী,দোষও বেশী-কাজ যে করে না তার দোষও নেই, সরকাররে সকল বিভাগেই কতিপয় খারাপ মানুষ আছে,এদের দুই একজনরে জন্য সবাইকে দায়ী করা যাবে না। ধরি আমাদের পুলিশ যদি সারাদেশে তার সঠিক দায়িত্ব পালন থেকে ১ঘন্টা অপারগতা প্রকাশ করে তবে দেশে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি কি যে ভয়াবহ অবস্থা ধারন করবে সেটি কি কেউ একবার ভেবে দেখেছেন? সমাজের প্রতিটি ভাল কাজে,ভাল ও সৎ মানুষকে উৎসাহতি করতে হবে যাতে করে সমাজে আরো ভাল মানুষ সৃষ্টি হয়। তবেই একদনি সত্যিকারে সুন্দর সমাজ ব্যবস্থা আমরা ফিরে পাবো-

Mouly Islam লিখেন, স্যার অত্যান্ত ভালো মনের মানুষ, এবং সৎ মনের। নওগাঁ বাসি আপনাকে খুব মিস করবে স্যার,আপনি চলে গেলেও আমাদের সবার অন্তরে উজ্জীবিত থাকবেন।

এ প্রসঙ্গে ওসি আব্দুল হাই বলেন, নওগাঁ সদর মডেল থানা হতে অন্য ইউনিটে বদলির জন্য আবেদন করে ছিলাম মঞ্জুর হয়েছে। তাই কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি সম্মানিত পুলিশ সুপার জনাব ইকবাল হোসেন পিপিএম স্যার পজিটিভ সুযোগ দিয়েছিলেন।

এক বছর দায়িত্ব পালনে নওগাঁ জেলার সকল সিনিয়র স্যারদের ও থানার অফিসার ফোর্সের সহযোগিতা পেয়েছি সকলের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। নওগাঁয় যদি কাউকে কষ্ট দিয়ে থাকি ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। নতুন যোগদানকৃত ওসি ছোটভাই সোহরাওয়ার্দি ও নওগাঁ বাসির প্রতি রইলো শুভকামনা।

পাঠকের মন্তব্য

লাইভ

টপ