বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার দুই তরুণী

নারায়নগঞ্জ প্রতিনিধি ১০:৩৬, ৩ জুন ২০১৯

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায় বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন গার্মেন্টস কর্মী দুই তরুণী। ঘটনার ১২ ঘণ্টার মাথায় ৬ ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
শনিবার রাতে বন্দর উপজেলার কলাগাছিয়া ইউনিয়নের সাবদী আইসতলা বিলে এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ধর্ষকদের গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় গণধর্ষণের শিকার এক তরুণী বন্দর থানায় মামলা করেছেন।
গ্রেফতাররা হলেন- বন্দর বালুর চর এলাকার নাজিম উদ্দিন মিয়ার ছেলে রায়হান (২৩), তমরদী এলাকার আব্দুল সাত্তার মিয়ার ছেলে শাহীন (২২), একই এলাকার মোজ্জাল হকের ছেলে নিজাম (২২), ছোনখোলা এলাকার জাহাঙ্গীর মিয়ার ছেলে সুজন (২০), মীরকুন্ডি এলাকার আলাউদ্দিন মিয়ার ছেলে নাজিম উদ্দিন (২৫) ও তমরদী এলাকার ফজলু হক মিয়ার ছেলে শাাহীন (২৪)।
গ্রেফতাররা গণধর্ষণের ঘটনা স্বীকার করে রোববার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়ার জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. কাওসার আলীমের আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন।


মামলার তদন্তকারী কর্মকর্ত বন্দর থানার মদনগঞ্জ ফাঁড়ীর ইনচার্জ ইন্সপেক্টর তরিকুল আলম জুয়েল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, শনিবার বিকেলে বন্দর উপজেলার আমিন এলাকায় বসবাসরত দুই গার্মেন্টস কর্মী তাদের দুই বন্ধুর সঙ্গে বন্দরের সাবদী এলাকায় বেড়াতে যান। পরে রাতে একটি ইজিবাইকে বাসায় ফেরার পথে ৭/৮ জনের একটি গ্রুপ তাদেরকে আটক করে। এ সময় দুই তরুণীকে আলাদা রেখে তাদের দুই বন্ধুকে সাবদী আইসতলা এলাকায় নিয়ে বেদম মারধর করে। পরে দুই গার্মেন্টস কর্মীকে একটি বিলে নিয়ে গণধর্ষণ করে ওই দলটি।
ঘটনার খবর পেয়ে জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদের নির্দেশে পুলিশ সাঁড়াশি অভিযান চালিয়ে প্রথমে তিনজনকে গ্রেফতার করে। পরে তাদের দেয়া তথ্যমতে আরও তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়।
এ ঘটনায় ওই দুই তরুণীর একজন বাদী হয়ে বন্দর থানায় মামলা করেছেন। গ্রেফতার ৬ জনের মধ্যে ৫ জন ধর্ষণের দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য

লাইভ

টপ