সর্বশেষ :

ভারতীয় সাহিত্যিক নবনীতা দেবসেন মারা গেছেন

অনলাইনডেক্স ০২:০৬, ৮ নভেম্বর ২০১৯

ভারতীয় সাহিত্যিক নবনীতা দেবসেন মারা গেছেন। দীর্ঘদিন ধরেই ক্যান্সারে ভুগছিলেন তিনি। বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে কলকাতার হিন্দুস্তান পার্কের বাড়িতে তার জীবনাবসান ঘটে। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮১ বছর। কবি, সাহিত্যিক, লেখক, প্রাবন্ধিক নবনীতার প্রয়াণে শোকস্তব্ধ সাহিত্য-সংস্কৃতি জগৎ। শোকপ্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পরিবার সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার (৮ নভেম্বর) শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।
পদ্মশ্রী, সাহিত্য একাডেমিসহ বহু গুরুত্বপূর্ণ পুরস্কারজয়ী নবনীতার জন্ম কলকাতায়। তিনি রাধারানি দেবী ও নরেন্দ্রনাথ দেবের কন্যা। বাবা ও মা দুইজনেই কবি ছিলেন, নবনীতাও আজীবন কাব্যচর্চা করে গিয়েছেন। ১৯৫৯ সালে প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘প্রথম প্রত্যয়’ দিয়ে লেখালেখির জগতে পা রাখেন তিনি। তার প্রথম উপন্যাস ‘আমি অনুপম’ ১৯৭৬ সালে প্রকাশিত হয়। নানা রঙের লেখায় গত পাঁচ দশকেরও বেশি সময় ধরে বাংলা সাহিত্যকে সমৃদ্ধ করেছেন। একের পর এক লিখে গিয়েছেন কবিতা, প্রবন্ধ, ভ্রমণকাহিনী, উপন্যাস। রম্যরচনাতেও নজরকাড়া মুন্সিয়ানা ছিল তার। প্রকাশিত গ্রন্থের সংখ্যা ৩৮। আত্মজীবনীমূলক রম্যরচনা ‘নটী নবনীতা‘ গ্রন্থের জন্যে ১৯৯৯ সালে সাহিত্য একাডেমি পুরস্কার পান নবনীতা দেবসেন। ২০০০ সালে পেয়েছিলেন ভারতের রাষ্ট্রীয় সম্মান ‘পদ্মশ্রী’। কবিতা ও গদ্য, উভয়ক্ষেত্রেই তিনি সিদ্ধহস্ত। তিনি দীর্ঘ দিন ‘রামকথা’  নিয়ে কাজ করছেন। সীতার দৃষ্টিভঙ্গি থেকে তিনি রামকথার বিশ্লেষণ করেছেন। ‘চন্দ্রাবতী রামায়ণ’ তার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কাজ।
নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেনের সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছিল ১৯৫৯ সালে। তাদের দুই মেয়ে অন্তরা দেবসেন ও নন্দনা সেন। ১৯৭৬ সালে তাদের বিবাহবিচ্ছেদ হয়ে যায়। তার পরে উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে যান তিনি। শিক্ষাবিদ নবনীতা অধ্যাপনা করেছেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের তুলনামূলক সাহিত্য বিভাগে। তিনি আমেরিকার কলোরাডো কলেজের তুলনামূলক সাহিত্যে মেট্যাগ প্রফেসর ছিলেন। এ ছাড়া তিনি অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের রাধাকৃষ্ণাণ স্মারক লেকচারার ছিলেন।
নবনীতা দেবসেনের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। টুইটের পাশাপাশি শোকবার্তাও দেন মুখ্যমন্ত্রী। লেখেন, ‘বিশিষ্ট সাহিত্যিক ও শিক্ষাবিদ নবনীতা দেবসেনের  প্রয়াণে আমি গভীর শোক প্রকাশ করছি। তিনি আজ (বৃহস্পতিবার) ৮১ বছর বয়সে কলকাতায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। অসংখ্য গল্প, কবিতা, রম্যরচনা ও উপন্যাসের স্রষ্টা নবনীতা দেবসেন পদ্মশ্রী, সাহিত্য একাডেমি, কমলকুমারী জাতীয় পুরস্কারে ভূষিত হন। তার প্রয়াণে সাহিত্য জগতে এক অপূরণীয় ক্ষতি হলো। আমি নবনীতা দেবসেনের পরিবার-পরিজন ও অনুরাগীদের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি।’
নবনীতা দেবসেনের প্রয়াণে শোকজ্ঞাপন করেছেন সাহিত্য ও রাজনীতি অঙ্গনের ব্যক্তিত্বরাও। শোক জানান অধীর চৌধুরী এবং বিমান বসু।

পাঠকের মন্তব্য

লাইভ

টপ