ভূমধ্যসাগরের নৌকাডুবি, নিহতদের মধ্যে ৩৭ জন বাংলাদেশি

নিউজবক্স ডেক্স ০১:৪৮, ১৩ মে ২০১৯

ভূমধ্যসাগরের তিউনিসিয়া উপকূলে অভিবাসীবাহী নৌকাডুবির ঘটনায় ৬৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের
অধিকাংশই বাংলাদেশের নাগরিক বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের অভিবাসী বিষয়ক সংস্থা (আইওএম)। রেডক্রিসেন্ট জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে ৩৭ জন বাংলাদেশি। তাদের মধ্যে ৫ জনের বাড়ি সিলেটে এবং একজনের বাড়ি মৌলভীবাজারে বলে জানা গেছে। সূত্র: সময় টিভি, এটিএন নিউজ
তারা অবৈধভাবে সমুদ্র পথে লিবিয়া থেকে ইউরোপ যাওয়ার চেষ্টা করছিলো। এ ঘটনায় ১৪ বাংলাদেশি নাগরিককে উদ্ধার করা হয়েছে বলে গণমাধ্যমের খবরে উঠে এসেছে। ঘটনাটি নিশ্চিত করে হতাহতদের বিষয়ে লিবিয়া ও তিউনিশিয়া কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।
সৌভাগ্যক্রমে প্রাণে বেঁচে যাওয়াদের আর্তনাদে ভারী হয়ে উঠেছে তিউনিশিয়ার জারজিস এলাকার বাতাস। চোখের সামনে এতো মানুষের মৃত্যু দেখে যেন কান্না থামছে না তাদের।
শুক্রবার রাজধানী তিউনিস থেকে ৭৪ কিলোমিটার দক্ষিণের সাফাক্স শহরে ভূমধ্যসাগরের উপকূলে ৭০ জনের বেশি শরণার্থী বোঝাই একটি নৌকা ইউরোপে পাড়ি দেয়ার সময় ডুবে যায়। জানা যায়, নৌকাটি ইতালি যাচ্ছিল। নৌকা ডুবে নিহতদের বেশিরভাগই বাংলাদেশি। এছাড়া উদ্ধার করা গেছে আরও কয়েকজন বাংলাদেশিকে।
দুর্ঘটনার খবর পেয়ে তিউনিশিয়ার নৌ-বাহিনীর জাহাজ জীবিতদের উদ্ধারে কাজ শুরু করে। সাগরে উত্তাল স্রোতের কারণে ওই নৌকা ডুবে যায় বলে জানা গেছে। এদিকে, নিহত বাংলাদেশিদের বিষয়ে তিউনিশিয়া কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।
তিউনেশিয়ার রেড ক্রিসেন্ট কর্মকর্তারা জানান, উত্তাল সাগরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নৌকাটি ১০ মিনিটের মধ্যে ডুবে যায়।

পাঠকের মন্তব্য

লাইভ

টপ