সর্বশেষ :

মাদক সম্রাজ্ঞী মধুকে যেভাবে আটক করলো নওগাঁ গোয়েন্দা পুলিশ

ইউনুস আলী ফাইম ০৭:৫০, ৬ জুলাই ২০১৯

নওগাঁয় ৩৫০ বোতল ফেন্সিডিল সহ ৩ জনকে আটকের ঘটনায় এবার নওগাঁ জেলা গোয়েন্দা পুলিশের সাহসী অফিসার এস আই মিজানুর রহমান মিজান এর নের্তেত্বে গোয়েন্দা পুলিশ গাজীপুর জেলায় এক দুঃসাহসীক অভিযান চালিয়ে যেভাবে ঐ ফেন্সিডিলের গড-মাদার মাদক সম্রাজ্ঞী মোসাঃ মধু বেগমকে আটক করে আনা হলো নওগাঁয়। আটককৃত মাদকের গড-মাদার মাদক সম্রাজ্ঞী মোসাঃ মধু বেগম গাজীপুর জেলার জয়দেবপুর থানার লক্ষীপুরা গ্রামের আবুল হোসেনের স্ত্রী বলে জানিয়েছেন, গোয়েন্দা পুলিশের এস আই মিজানুর রহমান মিজান ।
শুক্রবার দুপুরে নওগাঁ জেলা পুলিশ লাইনে, নওগাঁ জেলা পুলিশ সুপার মোঃ ইকবাল হোসেন পিপিএম এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের জানান, গোপন সংবাদের ভিওিতে জানতে পারে যে, কয়েকজন মাদক ব্যবসায়ী মান্দার ফেরিঘাটে মাদবদ্রব্য ফেন্সিডিল নিয়ে ঢাকা যাওয়ার জন্য অবস্থান করছিলো।

ডিবির ওসি সামসুদ্দিনের নেতৃত্বে এসআই মিজানুর রহমান মিজান সঙ্গীয় ফোর্স সহ গত বুধবার সকালে প্রথমে নওগাঁর মান্দা এলাকায় এক অভিযান চালিয়ে ফেরীঘাট এলাকা থেকে ৩টি নীল রঙের জারকিনের মধ্যে অভিনব কায়দায় রাখা ৩৫০ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিলসহ ৩ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেন।

৩ জনের দেয়া তথ্য মোতাবেক গোয়েন্দা পুলিশের এস আই মিজানুর রহমান মিজান এর নের্তেত্বে গোয়েন্দা পুলিশ গাজীপুর জেলার জয়দেবপুর থানার লক্ষীপুরা গ্রামের আবুল হোসেনের স্ত্রী মোসাঃ মধু বেগমকে বৃহস্পতিবার ভোরে নিজ বাড়ী থেকে গ্রেফতার করে নওগাঁয় নিয়ে আসেন।

আটককৃত মোসাঃ মধু বেগম দীর্ঘদিন থেকে মাদক ব্যবসা করে আসছিল বলে পুলিশের নিকট স্বীকার করেছে। সে এই মাদক ব্যবসা করে একটি টিন সেড, একটি ৩ তলা ও একটি ৪তলা পাকা বাড়ী নির্মান করেছে বলে এলাকাবাসীরা গোয়েন্দা পুলিশকে জানিয়েছেন।

অপরদিকে ৩৫০ বোতল ফেন্সিডিল সহ প্রথমে ৩ জনকে আটক ও পরে আটককৃতদের দেয়া তথ্যর ভিত্তিতে মাদকের গড-মাদার খ্যাত মাদকসম্রাজ্ঞী মোসাঃ মধু বেগম গাজীপুর জেলার জয়দেবপুর থানার লক্ষীপুরা গ্রাম থেকে আটক করে নওগাঁয় আনার ঘটনাটি জানাজানি হওয়ায় নওগাঁর সচেতন মহল জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশকের মাদক বিরোধী অভিযানকে সাধুবাদ জানিয়েছিন।

পাঠকের মন্তব্য

লাইভ

টপ