সর্বশেষ :

রাষ্ট্রপক্ষ থেকে জামিনের বিরোধিতায় সর্বোচ্চ প্রস্ততি রয়েছে-পিপি নজরুল ইসলাম শামীম

নিউজবক্স ডেক্স ১১:২২, ১৮ জুন ২০১৯

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার হয়েছেন ফেনীর সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম। সংশ্লিষ্টরা বলেছেন, ‘মোয়াজ্জেম হোসেনকে ফেনীর সোনাগাজী থানার পুলিশের নিকট হস্তান্তর করা হবে। এরপর তাকে আদালতে পাঠানো হবে।’
তবে ট্রাইবুনালের পাবলিক প্রসিকিউটর নজরুল ইসলাম শামীম জানান, আসামি ওসি মোয়াজ্জেমকে আদালতে হাজির করা হলে রাষ্ট্রপক্ষ থেকেও জামিনের বিরোধিতা করতে সর্বোচ্চ প্রস্ততি রয়েছে।
তিনি বলেন, ‘আসামি ওসি মোয়াজ্জেম যেন জামিন না পান, সেজন্য আমরা আইনগত সব ব্যবস্থা গ্রহণ করব।আইনগত যতো ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ আছে, আমরা আদালতে উপস্থাপন করব। তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তার আইনে ২৬, ২৯ ও ৩১-এর তিনটি ধারায় মামলা করা হয়েছে। এই ধারাগুলোর মধ্যে ২৬ ও ৩১ দুটি ধারায় জামিন অযোগ্য। শুধুমাত্র ২৯ ধারাটি জামিন যোগ্য। আমরা জামিন বিষয়ে সর্বোচ্চ বিরোধিতা করবো।’
উল্লেখ্য, ১৫ এপ্রিল ফেনী সোনাগাজীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির আনা যৌন হয়রানির অভিযোগ ভিডিওতে ধারণ এবং তা সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমন বাদী হয়ে ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন। এরপর বিচারক মামলাটি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করার নির্দেশ দেন।
এরপর, ২৭ মে মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার রীমা সুলতানা মামলার অভিযোগের সত্যতা প্রমাণিত মর্মে ১২৩ পৃষ্ঠার একটি প্রতিবেদন প্রতিবেদন জমা দেন ট্রাইব্যুনালে। এরপর বাদীর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন বিচারক।
এদিকে রবিবার গ্রেফতারি পরোয়ানা মাথায় নিয়ে ২০ দিন আত্মগোপনে থাকা আসামি মোয়াজ্জেম হোসেন হাইকোর্টের এলাকা থেকে গ্রেফতার হন।

পাঠকের মন্তব্য

লাইভ

টপ