ক্ষমতাবান ওসি বলে কথা ?

সাধারণ মানুষকে আটকের পর হ্যান্ডকাপ পরানো হয়, কিন্তু ওসি মোয়াজ্জেমকে পরানো হয়নি

অনলাইনডেক্স ১১:৩৩, ১৮ জুন ২০১৯

সোনাগাজীর সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনের মামলার বাদী ব্যারিস্টার সায়েদুল ইসলাম সুমন বলেন, ‘এটাতো স্পষ্ট যে শুরু থেকেই পুলিশ ওসি মোয়াজ্জেমের প্রতি সহানুভূতিশীল৷ সাধারণ মানুষকে আটকের পর হ্যান্ডকাপ পরানো হয়, কিন্তু তাকে পরানো হয়নি৷
সোমবার ডয়চে ভেলেকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ব্যারিস্টার সুমন আরো বলেন, পুলিশ তাকে সুযোগ দিয়েছে৷ চাইলে তাকে আরো আগে গ্রেফতার করতে পারতো৷ আমরা চাই সাধারণ মানুষের প্রতিও পুলিশ যেন এরকম আচরণ করে’৷
অভিযোগ রয়েছে, ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি যৌন হয়রানির বিষয়ে অভিযোগ করতে গেলে সোনাগাজী থানার তখনকার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেন অসহযোগিতা এবং অবহেলা করেন৷ এমনকি জিজ্ঞাসাবাদের নামে নুসরাতকে না জানিয়ে তার বক্তব্যের ভিডিও ধারণ করেন এবং তা ছড়িয়ে দেন৷ নুসরাত হত্যার পর এই অভিযোগে তার বিরুদ্ধে জিজিটাল আইনে মামলা হয়৷ ঢাকার সাইবার ক্রাইম ট্রাইবুন্যাল ডিজিটাল আইনের ওই মামলায় ২৭ মে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে৷ ২০ দিন পর শাহবাগ থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে৷

পাঠকের মন্তব্য

লাইভ

টপ